মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

শিক্ষা প্রতিবেদন

শিক্ষা উন্নয়নে গৃহিত পদক্ষেপঃ

জেলা শিক্ষা অফিস, ঝালকাঠি কর্তৃক গৃহীত কার্যক্রম:

ক) সরকার কর্তৃক প্রদত্ত বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক (মাধ্যমিক, দাখিল, ইবতেদায়ী এবং এস এস সি ভোকেশনাল) জেলা পর্যায়ে গুদামজাতকরণ এবং উপজেলা ও প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা ও মনিটরিং করা।

খ)বিদ্যালয়/মাদরাসা মনিটরিং ও বিভিন্ন সমস্যা সমাধাণ করা।

গ) বিদ্যালয়/মাদরাসা স্বীকৃতি নবায়নের জন্য প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে প্রতিবেদন সংশ্লিষ্ট বোর্ডে প্রেরণ করা।

ঘ) শিক্ষকদের বিভিন্ন রকম প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করা (ক্লাষ্টার, সৃজনশীল, সিপিডি-১, সিপিডি-২ এবঙ এসএমসি'র সদস্যদের প্রশিক্ষণ)।

ঙ)শিক্ষকদের এমপিওভুক্তি ও উচ্চতর বেতন স্কেল প্রদানের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র অগ্রায়ণ পূর্বক অধিদপ্তরে প্রেরণ করা।

চ) শিক্ষামন্ত্রণালয়/মহাপরিচাল, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর এর নির্দেশ মোতাবেক প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করা।

ছ) উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, সেকেন্ডারী এডুকেশন সেক্টর ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট-এ নিয়োগপ্রাপ্ত জেলা শিক্ষা অফিসে কর্মরত গবেষণা কর্মকর্তা, সহকারী পরিদর্শক এবং উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজারগণের কার্যক্রম মনিটরিং করা।

জ) শিক্ষা বিষয়ক বিবিধ কার্যক্রম পরিচালনা করা।

মাল্টিমিডিয়া ক্লাস রুমঃ

সরকার ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ রুপকল্প ২০২১ বাস্তবায়নে শিক্ষায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যাববহারের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন (এটূআই)প্রোগ্রামের সহায়তায় শিক্ষা মন্ত্রাণালয় দেশের ২০,৫০০ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাদ্রাসায় মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম স্থাপন করেছে।ইতিমধ্যে  প্রায় ৪০হাজার মাধ্যমিক শিক্ষককে মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম ও ডিজিটাল কন্টেন্ট বিষয়ক প্রশিক্ষন দেওয়া হয়েছে।

ঝালকাঠি জেলও এক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই। ইতিমধ্যে এ জেলার স্কুল কলেজ ও মাদ্রাসাগুলোতে মাল্টি মিডিয়া  ক্লাসরুম স্থাপন করা হয়েছে এবং পর্যায়ক্রমে সকল শিক্ষকদের এবিষ্যে প্রশিক্ষন প্রদান করা হয়েছে। এই  জেলায় শিক্ষকদের দ্বারা মাল্টিমিডিয়া কন্টেন্ট তৈরির কার্যক্রমকে গতিশীল এবং সফলভাবে শ্রেনীকক্ষে বাস্তবায়নের জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিয়মিত মনিটরিং করা হচ্ছে।জেলার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সমূহকেও জরুরী দিকনির্দেশনা প্রদান করা হচ্ছে।